মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২১st মার্চ ২০১৬

খতিব সম্মেলনে মেয়র আনিসুল হক- সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে সমর্থন করি না এবং তা কায়েম হতে দেব না; ঢাকা শহরকে বদলাব এবং অধিকতর বাসযোগ্য করে তুলব


প্রকাশন তারিখ : 2016-03-09

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক বলেছেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে সমর্থন করি না এবং তা কায়েম হতে দেব না। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ যদি ব্রান্ডিং হয়ে যায় তাহলে সব অর্জন হারিয়ে যাবে। তিনি আজ (৯ মার্চ বুধবার) বিকালে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয় আয়োজিত খতিব সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে-এসব কথা বলেন।
 

তিনি বলেন, ইমামগণ জীবনের চ্যালেঞ্জিং পথ হিসেবে ইসলামের প্রচার-প্রসারকে বেঁচে নিয়েছেন। তারা দেশের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করছে। কিন্তু মসজিদে ও শিক্ষকতায় তারা যে পরিমাণ সম্মানী পান তা দিয়ে সম্মানজনকভাবে বেঁচে থাকা সহজ নয়। তিনি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে ইমাম-খতিবগণের সহযোগিতা কামনা করেন।
 

 মেয়র আনিসুল হক আরো বলেন, আগামী ২ বছরের মধ্যে ঢাকা শহরকে  বদলাব এবং অধিকতর বাসযোগ্য করে গড়ে তুলব। যত প্রতিশ্রুতি দিয়েছি বিশেষ করে সবুজ ঢাকা, নিরাপত্তা, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, শৃঙখলা ও যানজট নিরসনসহ প্রত্যেক ক্ষেত্রে আমরা উদ্যোগী হয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছি। ইনশাল্লাহ্ নগরবাসী অচিরেই এর সুফল দেখতে পাবে।
 

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, সরকার আলেমদের জন্য দীনী দাওয়াত ভিত্তিক কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গণশিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে সরকার ৮০ হাজার আলেমের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে। তিনি আরো বলেন, ৪৭ সালের পূর্বে রাষ্ট্রের গায়ে কলেমা লেখা হয়নি। পাকিস্তানই সর্বপ্রথম রাষ্ট্রের গায়ে কলেমা লিখেছে। আল্লাহর নবী মুহাম্মদ সা. এসেছেন মানুষকে কলেমা শেখাতে, জমিনকে নয়।
 

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নূর মোহাম্মদ আলমের সভাপতিতেব অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ২৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নূরুল ইসলাম রতন, মাওলানা আবদুর রাজ্জাক ও মাওলানা জহিরুল ইসলাম মিঞা।
 

সম্মেলনে ঢাকা মহানগরীর সহস্রাধিক ইমাম-খতীব, আলেম-ওলামা অংশগ্রহণ  করেন।


Share with :
Facebook Facebook